ক্যাটেগরি

গল্প-কবিতা

একটি স্বপ্নভঙ্গের গল্প

ঐ তো এসেছে, মেয়েটি আবার এসেছে আজকে। সেই মেয়েটিই তো। ডাগর ডাগর চোখ, তালপাতার বাঁশির মত নাক, পাতলা ঠোঁট, হালকা শ্যামা গায়ের রং আর কোমর পর্যন্ত লম্বা চুল। ঠিক কালকের মতই আমার পাশে বসল। কথা বলবো? না থাক, আমার কি ঠ্যাকা? কিছুক্ষন কেটে গেলো চুপচাপ। হঠাৎ মেয়েটি আমাকে বললো “আপনার কাছে কলম হবে?” আমি উত্তর দিলাম, “ক্লাসেই যাই কলম ছাড়া আর এই লেকের পাড়ে কলম নিয়ে বসে থাকবো?” মেয়েটির...

বিষয়ের গন্ডগোল – লেখাপড়া নিয়ে কবিতা

সকাল বেলা মজা করে যখন পড়ি বাংলা মাঝে মাঝে মনে হয় বইটা কেন হ্যাংলা বাংলার পরেই পড়ি যখন খটমটে ইংরেজী মাঝে মাঝে পাগল হয়ে খাই শুধু ডিগবাজী রসে নাকি আয়ন আছে তাই সে রসায়ন রসে ভরা বইটি তবুও ভরে নাযে মন সবার চেয়ে জটিল বিষয় সেটা হল পদার্থ তাইতো আমার পদার্থ পড়ার নেই যে সামর্থ্য এতো বিষয় পড়ার পরে যখন পড়ি গণিত গণিতের মারপ্যাচে ভুলে যাই অতীত সমাজই সমাজ শেখায় তবুও কেনো সমাজ নাকি সমাজে শেখায় মোদের দুনিয়ার অকাজ...

তুমি আমি হলে আমি হব তুমি

তুমি গায়িকা হলে আমি হব গায়ক.. তুমি নায়িকা হলে আমি হবে নায়ক… তুমি রসুন হলে আমি হব পেয়াজ.. তুমি শাবনূর হলে আমি হব রিয়াজ… তুমি দাদী হলে আমি হব দাদা.. …তুমি এলাচি হলে আমি হব আদা… তুমি কবিতা হলে আমি হব কলম.. তুমি ব্যথা হলে আমি হব মলম… আমি কবি হলে তুমি আমার কবিতা, আমি আলমগীর হলে তুমি তবে ববিতা.. তুমি কারিনা হলে আমি হব সাইফ.. আমি রণবীর হলে তুমি তো… ক্যাটরিনা...

দুঃস্বপ্ন – (আমার লেখা একটা মাথা-নষ্ট কবিতা)

দ্বার রুদ্ধ করে দিয়ে লিখেছিলেম কবিতা, বাতায়ন দিয়ে দেখে হেসেছিল সবিতা। বহ্নিতে কবিতাটি ফেলে দিয়ে আমি তাই নেত্রকোণে চেয়ে আছি পুড়ে পুড়ে হল ছাই। হোমাগ্নি থেমে গেলে আধিঁয়ারে দাড়ালাম, দোপাণি বাড়িয়ে দিয়ে অজানাতে চললাম। দরজাটা খুজে পেতে খুলে আমি দাড়িয়ে- অহন হারিয়ে গেছে অবনীকে মাড়িয়ে। রমনীয়, তাই চেয়ে আছি ক্ষণদার ব্যোম থেকে থেকে কেন জানি হেসে ওঠে সোম। দৈবাৎ কি মনে হতে সোমকে জিজ্ঞাসিলে- কি শুরু করলে...

রাখে আল্লাহ মারে কে (একটি ভিন্নধর্মী র‍্যাপ সঙ্গীত)

একদা তিন বন্ধু মিলে ভোর বেলাতে কথা বলছিলাম আমরা হাটতে হাটতে জীবনটা শুষ্ক ভীষণ পানি নাই দিলে ব্যতিক্রমী কিছু করব তিনজন মিলে হঠাৎ দুষ্টু বুদ্ধি চাপল আমার মাথায় বললাম চুরি করব এবার পাড়ায় পাড়ায় বাকি দু’জন চমকে উঠল বলে কি শালায় মুচকি হেসে বললাম শুধু আবার জিগায় তখনই শুরু হল চুরি অভিযান স্থান রহমত চাচার বাড়ির পিছনের বাগান মোটা এক আম গাছে উঠি তিনজনে চাচা আসতে পারে সেটা কারো নাই মনে হঠাৎ করে নিচ...

একটি ফটোশপীয় গদ্য

কারও কারও মুখে অনেক দাগ, বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে, দাগের কারনে বিয়েও হচ্ছে না। মাঝে মাঝে মনে হয় এত এত কোম্পানী মেয়েদের জন্য কত কত ব্রাশ বানিয়েছে মেকআপ করার জন্য, আরেকটু কষ্ট করে একটা স্পট হিলিং ব্রাশ বানালে কি হত? ছেলেদের জন্য কিছু নাই, একটা স্পট হিলিং ব্রাশ আমারও লাগত, হালকা পাতলা দাগ তো আছেই। আর একটা আরজিবি কার্ভ কিংবা লেভেল পাউডার, ত্বকের ব্রাইটনেসটা আরেকটু বাড়াতে পারলে মন্দ হত না।...

Recent Posts

Recent Comments

Archives

Categories

Pin It on Pinterest