আমার সম্পর্কে

ইন্টারমিডিয়েট পরীক্ষা দেয়ার পর এক তরুনের মাঝে হতাশা ঢুকে গিয়েছিল, সে কি করবে এখন, কোথায় যাবে এখন? কারন সে জানত যে পরীক্ষায় যে রেজাল্ট আসবে তা দিয়ে মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিং কিংবা পাবলিক ভার্সিটি গুলোতে ফর্মও টানতে পারবে না। তারপর এক বন্ধুর ফটো স্টুডিও দোকানে ছবির কাজ দেখে ভাললাগা শুরু। এরপর আর কি, ভাললাগা থেকে নেশা, পেশা হয়ে এখন আপনাকে সে এই পেজ পর্যন্ত এনেছে।

বলছিলাম আমার নিজের কথা, আমি শাহাদাত রহমান শিমুল। মনে প্রাণে একজন গ্রাফিক ডিজাইনার এবং ফটোগ্রাফার। এর পাশাপাশি আরও টুকিটাকি অনেক কিছু করি, লেখালেখি এর মধ্যে অন্যতম। চেষ্টা করি ভাল কিছু লেখার যাতে করে মানুষ হয় আনন্দ পাবে নয়ত কিছু শিখতে পারবে। ঢাকায় থাকি, যদিও গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার লাকসামে। লাকসামে থাকতেই এই ওয়েবসাইটটি খুলতে চেয়েছিলাম কিন্তু তখন খুব একটা সাহস পাইনি। যাই হোক, এই ওয়েবসাইটটি আমার খোলা ডায়েরী বলতে পারেন। মানুষের ডায়েরী খুব ব্যক্তিগত জিনিস, কিন্তু আমার এই ডায়েরীটি উন্মুক্ত। আপনি আমার লেখা পড়তে পারেন, ভাল লাগলে হাসতে পারেন, শেয়ার করতে পারেন কিংবা রাগ লাগলে কমেন্টে দু’টো কড়া কথাও লিখে দিতে পারেন। আমি কিছুই মনে করব না।

ফেসবুকে মাঝে মাঝেই বড়/মাঝারি লিখা লিখি। মাস যায়, বছর যায়, সেগুলো মাঝে মাঝে খুজে বের করার দরকার পড়ে। কিন্তু সবসময় পাই না। কি লিখে সার্চ দিব সেটাও বুঝতে পারিনা অনেক সময়। এছাড়া মাঝে মাঝে এনভাটো বাংলাদেশ গ্রুপে অনেকের ছোট ছোট প্রশ্নের অনেক বড় বড় উত্তর দিতে হয়, আবার একই প্রশ্ন কয়েক মাস পরে অন্য কেউ করলে তাকেও একই উত্তর দিতে গিয়ে পুনরায় বিশাল লেখা টাইপ করতে হয় সেজন্যে এইসব লেখাগুলি সুন্দর করে সাজিয়ে আরও বিস্তারিত আকারে আমার খোলা ডায়েরীতে লিখে রাখতে চাই, যাতে করে পরবর্তী কেউ প্রশ্ন করলে তার হাতে সংশ্লিষ্ট লিংকটা ধরিয়ে দিতে পারি।

এইতো, মাঝে মাঝে গল্প-কবিতাও লিখি। ওগুলো একটা অখাদ্য কিংবা বিস্বাদ লাগতে পারে আপনার কাছে, দয়া করে ভুল-ত্রুটি ধরিয়ে দেবেন। আর বেশি বেশি করে দোয়া করবেন আমার জন্য। ভাল থাকুন, শুভকামনা রইল।

 

Recent Posts

Recent Comments

Archives

Categories

Pin It on Pinterest

Shares
Share This